জাতীয়

গোটা দেশই এখন কারাগার : মঈন খান

অনলাইন ডেস্ক:

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান বলেছেন, গোটা দেশই এখন কারাগার। বাংলাদেশ এখন সেই পরিস্থিতিতে আছে। ক্ষমতায় থাকার নেশা পেয়ে বসলে সরকার এমন একটি পর্যায়ে উপনীত হয় যে, দেশের মানুষের কথা ভুলে যায়।

সোমবার (২৬ ডিসেম্বর) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরইউ) এক প্রতিবাদ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া, মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ দলের অন্য নেতাদের মুক্তির দাবিতে এই প্রতিবাদ সভার আয়োজন করে রাশেদ ইকবাল খান মুক্তি পরিষদ।

রাশেদ ইকবাল খান ছাত্রদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি। তিনি গত ৭ ডিসেম্বর নয়াপল্টনে পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছেন।

ড. আব্দুল মঈন খান বলেন, ‘আমরা বিরোধী দলের রাজনীতি করি। আমরা সরকারের বিরোধী নই, সরকারের অন্যায়ের বিরোধী। সংবিধান বলে, সরকারের ভুল কাজে জবাবদিহি নিশ্চিত করা বিরোধী দলের কাজ। আমরা গণতন্ত্রে বিশ্বাসী। কিন্তু সরকার ক্ষমতা দীর্ঘায়িত করতে বিরোধী দলকে নিঃশেষ করতে চায়।’

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের মানুষের চরিত্র হচ্ছে- তারা কথা বলতে চায়, চিন্তার স্বাধীনতা চায়। স্বাধীনতার এত বছর পরও কি আমরা তা অর্জন করেছি- এই প্রশ্ন তরুণ প্রজন্মকে করতে হবে। যে দল গণতন্ত্র চায় না, তারা কিভাবে স্বাধীনতার পক্ষের হতে পারে?’

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিএনপির আন্তর্জাতিক সম্পাদক নাসির উদ্দিন অসীম বলেন, ‘দেশে এখন আইনের শাসন নেই। একই সময় একই মামলায় কেউ জামিন পায়, কেউ জামিন পায় না। এর মাধ্যমে আমাদের মধ্যে ষড়যন্ত্রের বীজ বপন করে দেয়ার চেষ্টা করছে সরকার। এই ষড়যন্ত্র করে কোনো লাভ হবে না।’

তিনি বলেন, ‘আমরা আমাদের দলের প্রধানসহ শীর্ষ নেতাদের মুক্ত করতে পারিনি। যেদিন মুক্ত করতে পারব, তখন গণতন্ত্র মুক্তি পাবে। সরকারের পতন হবে।’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের সাবেক আহ্বায়ক আক্তার হোসেনের সভাপতিত্বে ও ছাত্রদলের সহ-সভাপতি করিম প্রধান রনির সঞ্চালনায় সভায় আরো বক্তব্য দেন স্বেচ্ছাসেবক দলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আব্দুল কাদির ভূঁইয়া জুয়েল, ছাত্রদলের খন্দকার আনিসুর রহমান অনিক প্রমুখ।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button