বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ ৮ আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম

ঈদের কেনাকাটা করতে ভারতে গেছেন দুই লাখ বাংলাদেশী

অনলাইন ডেস্ক | ২০ জুন ২০১৭ | ২:০৫ অপরাহ্ন

ঈদের কেনাকাটা করতে ভারতে গেছেন দুই লাখ বাংলাদেশী

ঢাকা, ১৯ জুন। চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে ভারত-বাংলাদেশ দ্বৈরথ নিয়ে দুদেশের মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় বাক্যবাণের লড়াই চলেছিল। একে অপরকে পাল্টা বিঁধেছেন দুদেশের ক্রিকেটভক্তরা। তবে সেটা বোধহয় খেলার লড়াইয়েই সীমাবদ্ধ। কারণ, বাংলাদেশ থেকে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ আসছেন ভারতে। বিশেষ করে কলকাতায়। ভারতে ঈদের শপিং করছেন তারা। পশ্চিমবঙ্গভিত্তিক ওয়ান ইন্ডিয়া অনলাইনে এখবর প্রকাশিত হয়েছে।
প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের বাজারে এখন ভারতীয় পোশাকে সয়লাব। তা সত্ত্বেও সে দেশের নাগরিকদের ফেভারিট শপিং ডেস্টিনেশন এখনো ভারতই। এবার ঈদের কেনাকাটায় দেড় লাখেরও বেশি বাংলাদেশর ভারতে যাওয়ার কথা রয়েছে।
এতে বলা হয়, ভারতীয় হাই-কমিশন গত বছরে অতিরিক্ত ১ লাখ ভিসা দিয়েছিল। গত বছরের চেয়ে এবার আরো বেশি মানুষ কেনাকাটা করতে আসবেন বলে জানা গিয়েছে। বাংলাদেশি সাংবাদিক মিজানুর রহমান সোহেল ভারত থেকে ঈদের কেনাকাটা করেছেন। তিনি জানান, “কলকাতার নিউমার্কেট এলাকাসহ আশপাশের মার্কেটগুলোতে বাংলাদেশি ক্রেতাদের প্রচণ্ড ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। এখন প্রতিদিন গড়ে প্রায় পঁচিশ হাজার বাংলাদেশী ক্রেতা আসছেন শুধু নিউ মার্কেট চত্বরে। সংখ্যাটা দেড় লাখ থেকে দু’লাখ ছাড়িয়ে যেতে পারে।”
এফবিসিসিআই সভাপতি সফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন মনে করেন, কেনাকাটা করতে অন্য দেশে যাওয়া তখনই বন্ধ হবে, যখন দেশেই মানসম্মত পণ্য পাওয়া যাবে প্রতিযোগিতামূলক দামে। এমন অনেক পণ্য হয়ত আছে যেগুলো বাংলাদেশে পাওয়া যায় না। দেশ থেকে বিপুল পরিমাণ অর্থ চলে গেলেও কিছুই করার নেই।


বাংলাদেশ সময়: ২:০৫ অপরাহ্ন | মঙ্গলবার, ২০ জুন ২০১৭

প্রবাসীকালডটকম | প্রবাসে দেশের প্রতিচ্ছবি |

advertisement

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

১৬ জানুয়ারী ২০১৭

advertisement
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  
advertisement

সম্পাদক : যাকারিয়্যা মাহমূদ

নির্বাহী সম্পাদক : শাহাদাত হুসাইন

বার্তা সম্পাদক : এস এ রুবেল


phone : +966534923608, +966551957380, +8801912-392439 | E-mail : newsprobasikal@gmail.com, editorprobasikal@gmail.com

©- 2020 প্রবাসীকালডটকম | প্রবাসে দেশের প্রতিচ্ছবি all right reserved