জাতীয়ব্রেকিংরাজনীতিস্লাইডার

না জানিয়ে দলীয় প্যাডে মোকাব্বিরের চিঠি!

গণফোরামের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও সিলেট-২ আসন থেকে নির্বাচিত মোকাব্বির খান দলীয় সিদ্ধান্তে শপথ নেবেন বলে জানিয়েছেন। তবে তাঁর দল গণফোরাম বলছে, তিনি দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে শপথ নিচ্ছেন। তা ছাড়া দলের প্যাড ‘চুরি’ করে মোকাব্বির স্পিকারকে চিঠি পাঠিয়েছেন বলেও অভিযোগ করা হয়েছে।

আজ সোমবার বেলা তিনটায় গণফোরামের প্যাডে পাঠানো চিঠিতে দু-এক দিনের মধ্যে শপথ নেওয়ার আগ্রহের কথা জানান মোকাব্বির। স্পিকার তাঁকে আগামীকাল মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় শপথ গ্রহণের জন্য সময় দিয়েছেন। শপথের বিষয়ে মোকাব্বির খান প্রথম আলোকে বলেন, ‘দলীয় সিদ্ধান্তেই আগামীকাল শপথ নিচ্ছি।’

এ বিষয়ে গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী প্রথম আলোকে বলেন, ‘দলীয় সিদ্ধান্ত হচ্ছে শপথ না নেওয়ার। কেন্দ্রীয় কমিটির সিদ্ধান্ত এটা। আমাদের কেন্দ্রীয় কমিটির আরেকটি মিটিং আছে। তার আগেই উনি এটা কেন করলেন, বুঝলাম না। দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করেই তিনি শপথ নিচ্ছেন। উনি যা বলছেন তা সঠিক না।’

শপথ নিতে গণফোরামের প্যাডে চিঠি পাঠানোর বিষয়ে সুব্রত চৌধুরী বলেন, মোকাব্বির খান গণফোরামের প্যাড ‘চুরি’ করে সেই কাগজে স্পিকারের কাছে চিঠি পাঠিয়েছেন। মোকাব্বিরের বিষয়ে কী ধরনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে? জানতে চাইলে তিনি বলেন, পরে বৈঠক করে তা জানানো হবে।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মোকাব্বির খান জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের হয়ে দলীয় প্রতীক উদীয়মান সূর্যে নির্বাচন করেন। এবারের নির্বাচনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট আটটি আসনে জয়লাভ করে। তাঁর মধ্যে বিএনপি ছয়টি ও গণফোরাম দুটি আসন পায়। গণফোরামের আরেক সদস্য সুলতান মনসুর মৌলভীবাজার-২ আসন থেকে ধানের শীষ প্রতীকে লড়ে নির্বাচিত হন। গত ৭ মার্চ তিনি শপথ নেন। দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে শপথ নেওয়ায় তাঁকে গণফোরাম থেকে বহিষ্কার করা হয়। ৭ মার্চ মোকাব্বির খানেরও শপথ নেওয়ার কথা ছিল। তবে তাঁর আগের দিন তিনি সে সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেন।

সূত্র:প্রথমআলো

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close